Get the Latest News & Videos from News24 > চিত্র-বিচিত্র > বদরুল হকের একগুচ্ছ কবিতা

খ্যাতির বিড়ম্বনা
———————- বদরুল হক

এক সিগারেট শেষ না হতেই,
আরেক সিগারেট ধরাই!
জীবন হলো তপ্ত রুটি,
যেনো চুলার উপর কড়াই!

বেশভূষা ভারী,
শার্ট-প্যান্ট, কোট-টাই!
ঘড়ি-সানগ্লাস,মাতাল খুশবু,
চকচকে জুতোর,
কট-কট শব্দ!
শরীরের ঝাকুনিতে,
চারপাশ স্তব্ধ!

স্যার-স্যার শব্দে,
কান ঝালাপালা,
কখনো মুচকি হাসি!
এটাও এক মধুর বিড়ম্বনা,
সম্মান রাশি-রাশি!
অতিরিক্ত প্রেম,
সমীহ-ভালোবাসা,
যেনো গলায় পরেছি ফাঁসি!

পৃথিবীর মোহে মাতাল হয়ে,
সময়ের স্রোতে ভাসি-
পৃথিবী কে ভালবাসি!

ধন্যবাদ!

দুঃস্বপ্ন
————- বদরুল হক

দ্বিপ্রহরে নতুবা,
কাক ডাকা ভোরে,
তুমি চমকে উঠবে,
ঘুম ভেঙ্গে যাবে তোমার!

পৃথিবীর চূড়ান্ত শূন্যতা,
ভর করবে তোমার হৃদয়ে!
অশান্ত অস্থির হবে মন,
চোখের রেটিনা গুলো,
চারপাশে অস্থির ছুটোছুটি করবে,
খুঁজে বেড়াবে,
বিশ্বাস ভরসার আপনজন!

রাতের অন্ধকার বা,
কুয়াশায় ঢাকা চারপাশ,
অথবা অন্ধকার কুঠুরিতে,
হাতরে বেড়াবে পানির পাত্র!

গলা শুকিয়ে কাঠ হবে,
প্রচন্ড তেষ্টা পাবে তোমার!
এক গ্লাস পানির মতো,
অথবা পরিচ্ছন্ন সম্মুখ,
নতুবা অন্ধকার কেটে,
আলোকিত সকাল!

কোনদিন আসবে কিনা!
জানিনা মিটবে কিনা তেষ্টা তোমার!
জীবন মানে,
সুখের বিপরীতে দুখের পাহাড়!

ধন্যবাদ!

হৃদয়ের বন্ধন
——————– বদরুল হক

জীবন চলমান ট্রেন বা গাড়ি,
নয়তো আকাশপথে,
উড়ে চলা বিমান!
অথবা কচুরিপানা,
ভাসমান জলে,
ভেসে চলে অজানার পথে!

জীবনের প্রয়োজনে জীবন,
কখনো কখনো থামে!
আবার ধেয়ে চলে,
অথবা ভেসে চলে,
জীবনের বাহনে!

কখনো অজানায়,
ঠিকানাবিহীন পথচলা!
হৃদয়ের অব্যক্ত কথাগুলো,
শব্দ ধ্বনিতে,
অথবা চোখে-চোখে হয়ে যায় বলা!

এরই নাম প্রেম,
হৃদয়ের অবিচ্ছেদ্য বন্ধন!
যা হারাবার নয়,
হারাবেনা কখনো!

ধন্যবাদ!

মিথ্যে মরীচিকা

——————– বদরুল হক

কোনো একদিন,
হটাৎ কখনো,
কোনো এক সময়!
প্রভাত মধ্যাহ্ন দ্বিপ্রহর বা রাতে,
আচমকা যদি ঘুম ভেঙ্গে যায়!
দমকা বাতাসে,
হৃদয়ের কড়া নড়ে!

বুভুক্ষু তৃষ্ণার্ত হৃদয়ে,
যদি হাপিত্যেশ উঠে,
অস্হির হয় মন!
দেহ মন ছটফট করে,
ব্যাকুল হয়ে উঠি!
রক্তাক্ত হয়ে উঠে,
অতৃপ্তি অপূর্ণতার কষাঘাতে!

বন্দি খাঁচায় অবরুদ্ধ মন,
যখন-তখন এদিক সেদিক ছুটে!
মন চায় ভেঙে ফেলি,
প্রকোষ্ঠো প্রাচীর বা প্রকাণ্ড কপাট!
খাঁচা ভেঙ্গে উড়ে যাই,
মুক্ত বিহঙ্গের মতো!

হাতে হাতকড়া,পায়ে শেকল,
প্রাচীর দেয়াল সামাজিক শৃঙ্খল,
চূর্ণ-বিচূর্ণ করি!
বিস্তৃত আকাশে,
ঘুড়ি হয়ে যাই উড়ি!

নাটাই সুঁতোর প্রেম বন্ধনে,
সুতোয়-সুতোয় মাখামাখি!
বিশাল আকাশে ঘুড়ির নাচানাচি,
এযে আনন্দ বিলাস,
সীমাহীন স্বপ্নের আকাশে!

এসো কাটাকাটি খেলি,
কেটে যাই যদি পাছে,
কষ্ট নেই মোর,নেই আক্ষেপ!
তা’ও ভালো,
অজানায় হারাই কোথাও!

লাল নীল বেগুনি রং,
ভালোবাসার প্রজাপতি উড়ে!
সুখের তালাশে,প্রেমের বাজারে,
সুখ নেবো সওদা করি,
হৃদয়ের ডালা ভরি!

সুখি হবো সেথা,নয়তো হবোনা!
নতুন পৃথিবীর কোথাও!
ভগ্ন হৃদয়ে,কষ্টের বাজার,
মৃত্যুর চেয়েও শ্রেয়!
কি ব্যথা অন্তরে,
বলতে পারিনি,
শুনতে চাহেনি কেহ!

ধন্যবাদ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *