ক্যাসিনো কারবারের গোড়াপত্তনকারী এনামুল-রূপম গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর গেণ্ডারিয়া থানায় ক্যাসিনোর টাকায় সম্পদের পাহাড় গড়া আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক এনু, তার ভাই একই কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক রুপন ভূঁইয়া গ্রেফতার হয়েছেন। পলাতক হওয়ার ৩ মাস পর পুলিশের অপরাধ তদন্ত শাখা (সিআইড) গতকাল সোমবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে কেরানীগঞ্জের একটি বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় তাদের কাছ থাকা ৪০ লাখ টাকা, ১২টি মোবাইল ফোন, বাড়ির দলিলপত্র এবং ব্যাংকের কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়। সে সময় শেখ সানি মোস্তফা নামে তাদের এক সহযোগীকে আটক করা হয়। দেশের বাইরে পালিয়ে যেতে চেয়েছিল এ দুই সহোদর। এ জন্য তারা পালিয়ে কক্সবাজারে একটি হোটেলে দুই মাস আত্মগোপন করেছিল। সেখান থেকে সাগর পথে মালয়েশিয়া বা থাইল্যান্ড যাওয়ার চেস্টা করেছিল। পরে ঢাকায় ফিরে এসে কেরাণীগঞ্জে একটি বাসা ভাড়া করে আত্মগোপন করেন। তারা জাল পাসপোর্ট বানিয়ে ভারত হয়ে নেপাল যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলো। মালিবাগে সিআইডি কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিআইডি আর্গানাইজড ক্রাইম টিমের ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ গণমাধ্যমে এসব তথ্য তুলে ধরেন।

গণমাধ্যমে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শুদ্ধি অভিযানের অংশ হিসেবে গত সেপ্টেম্বরে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তারই ধারাবাহিকতায় ১৮ সেপ্টেম্বর এনামুলের শেয়ার থাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাবসহ বিভিন্ন ক্লাবের ক্যাসিনোতে অভিযান চালায় র‌্যাব। পরে ২৫ সেপ্টেম্বর গেন্ডারিয়ায় এনামুল-রুপন ও তাদের দুই সহযোগীর বাসা থেকে ৫ কোটির বেশি টাকা, ৮ কেজি স্বর্ণ (৭০০ ভরি) ও ছয়টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে র‌্যাব। এ ঘটনায় গেণ্ডারিয়া, সূত্রাপুর ও ওয়ারী থানায় ৭টি মামলা হয়।

পরবর্তীতে দুদক তদন্ত করে ২৩ অক্টোবর ৩৬ কোটি টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে এনামুল ও রূপনের বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করে। অভিযানের আগেই এনামুল-রূপন এবং তাদের দুই সহযোগী হারুন অর রশিদ ও আবুল কালাম গা ঢাকা দেন।

সিআইডির শীর্ষ কর্মকর্তা ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, গত সেপ্টেম্বরে শুরু হওয়া অভিযানে ক্যাসিনো কান্ডের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার ও অর্থ জব্দের পর তাদের বিরুদ্ধে অর্থপাচার আইনে যে ৯টি মামলা হয়, সেগুলো তদন্তের ভার সিআইডির কাছে আসে। ওইসব চারটি মামলার এজাহারেই গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক ও সাধারণ সম্পাদক রূপন ভূঁইয়ার নাম দেখা যায়। মামলা তদন্তের ধারাবাহিকতায় আমরা তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করি ও সকালে কেরানীগঞ্জে তাদের এক সহযোগীর বাড়ি থেকে দুজনকে আটক করা হয়।

তিনি আরো বলেন, সিআইডির তদন্তে ও তাদের জিজ্ঞাসাবাদে দুই ভাইয়ের সম্পত্তির বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উঠে এসেছে। এই দুজনের মোট ২২টি জমি ও বাড়ি রয়েছে, যার অধিকাংশই পুরান ঢাকা এলাকায়। এছাড়া সারাদেশে ব্যাংকের বিভিন্ন শাখায় ৯১টি অ্যাকাউন্টে তাদের মোট ১৯ কোটি টাকা জমা রয়েছে। ব্যক্তিগত পাঁচটি গাড়িও রয়েছে দুই ভাইয়ের।

সেপ্টেম্বরে দুজনের বাড়িতে অভিযানের সময় ৫ কোটি ৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছিল। আমরা জানতে পেরেছি সেগুলো ব্ল্যাকমানি (কালো টাকা)। দেশের বাইরে পাচার করতে তারা সেগুলো রেখেছিলেন। রিমান্ডে নিয়ে দুই ভাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও বিস্তারিত জানা যাবে বলেও মন্তব্য করেন ইমতিয়াজ আহমেদ।

গণমাধ্যমের এক প্রশ্নের উত্তরে ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, তাদের উদ্দেশ্য ছিল, নৌযানে অবৈধভাবে মিয়ানমার হয়ে মালয়েশিয়া পালিয়ে যাবেন। যার কারনে কক্সবাজারে গিয়েছিলেন তারা। তবে ওই চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে প্রতিবেশী দেশ হয়ে নেপালে যাওয়ার পরিকল্পনা করেন তারা। এজন্য তারা ঢাকায় এসে কেরানীগঞ্জে মোস্তফা নামের ওই সহযোগীর বাড়িতে অবস্থান করেন। সেখান থেকে বেনামি পাসপোর্ট তৈরির পরিকল্পনা করছিলেন দুই ভাই। এ কাজেই ব্যায়ের জন্য ৪০ লাখ টাকা সঙ্গে রেখেছিলেন তারা। আটকের সময় ওই টাকা ছাড়াও ১২টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

সিআইডি’র ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ আরো বলেন, আমরা জেনেছি এই দুজনের মাধ্যমেই বাংলাদেশে ক্যাসিনো কারবারের গোড়াপত্তন হয়। নেপালিদের মাধ্যমে তারা ক্যাসিনোর সরঞ্জাম বাংলাদেশে এনেছে। এনামুল ওয়ান্ডারার্স ক্লাবের পরিচালক ছিলেন।

সিআইডি জানায়, এনামুল ও রুপন ভুঁইয়ার ব্যাংক হিসাব সংক্রান্ত দলিলপত্র ঘেঁটে দেখা যায়, পুরান ঢাকার কয়েকটি বেসরকারি ব্যাংকের শাখায় এনামুল ও রুপনের নামে একের পর এক হিসাব খোলা হয়। সবচেয়ে বেশি হিসাব খোলা হয় ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক ও স্ট্যান্ডান্ড চার্টার্ড ব্যাংকে। বড় অঙ্কের অর্থ জমা রাখার কারণে ব্যাংকগুলো এনামুল-রূপনকে বিশেষ ব্যাংকিং সুবিধা দিতে রীতিমতো প্রতিযোগিতায় মেতে ওঠে। ওইসব ব্যাংকের কর্মকর্তাদের কাছে এনামুল-রূপন মাঝে মধ্যেই দামি উপহার পাঠাতেন। এসব কারণে বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে এনামুল-রূপন ভিআইপি গ্রাহক হিসেবে পরিচিত ছিলেন।

নিউজ২৪.ওয়েব/ডেস্ক/মৌ দাস/আহসান শিপু

news24 bd

Read Previous

আজ মিন্নির জামিন বাতিলের বিষয়ে আদেশ

Read Next

চট্টগ্রামে কাস্টম হাউসে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদের অবস্থান কর্মসূচি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *