আইভীকে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে ২২ মাস পর মামলা

অনলাইন ডেস্ক: আলোচিত ফুটপাতে হকার বসানোকে কেন্দ্র করে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তার সমর্থকদের ওপর হামলা ও হত্যার চেষ্টায় ২২ মাস ১৮ দিন পর আদালতে মামলা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম ফাহমিদা খাতুনের আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে সদর মডেল থানাকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে বুধবার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে সিটি করপোরেশনের আইন কর্মকর্তা জি এম এ সাত্তার বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে সদর মডেল থানাকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন। মামলায় ঘটনার দিন অস্ত্র প্রদর্শনকারী নিয়াজুল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজামসহ ৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত প্রায় ৯০০ থেকে ১০০০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, এই মামলায় অন্যরা হলেন- মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জানে আলম বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন, যুবলীগকর্মী নাসির উদ্দিন ওরফে টুন্ডা নাসির, যুবলীগ নেতা চঞ্চল মাহমুদ।

এই ঘটনায় এর আগে গত বছরের ২৩ জানুয়ারী সিটি করপোরেশনের আইন কর্মকর্তা জি এম এ সাত্তার বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হলেও তা মামলা হিসেবে নেয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, ফুটপাতে হকার বসানোকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় মেয়র আইভী ও তার সমর্থকদের ওপর হকার ও সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সমর্থকরা হামলা চালায়। সংঘর্ষে মেয়র আইভী, সাংবাদিকসহ শতাধিক আহত হন। এই ঘটনায় শামীম ওসমানের সমর্থক নিয়াজুল ইসলামকে প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে গুলি চালাতে দেখা যায়। পরে তিনি গণপিটুনির শিকার হন।

নিউজ২৪.ওয়েব/ডেস্ক/নিরাক

news24 bd

Read Previous

বাংলাদেশি ব্যতিত কাউকে দেশে ঢুকতে দেয়া হবে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Read Next

বিজিবি কর্মকর্তাদের কোর্ট মার্শাল, একটি গুজব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *