গুলি করে শিশু বলি থামাল পুলিশ: ভণ্ড সাধুসহ পরিবারের অন্যদের সদস্য গ্রেপ্তার

নিউজ২৪.ওয়েব: যজ্ঞের লকলকে আগুনের শিখা ঘিরে চলছে পরিবারের উন্মত্ত নগ্ন নৃত্য। কিছুক্ষণের মধ্যেই দেওয়া হবে শিশু বলি। শেষ পর্যন্ত প্রতিবেশীদের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গুলি করে এই রোমহর্ষক কাণ্ড থামিয়েছে। একবিংশ শতাব্দীতে এসে এমন ভয়ঙ্কর কুসংস্কারের সাক্ষী হতে চলেছিল ভারতের আসাম রাজ্যের ওদালগুড়ি।


গনমাধ্যমে জানা যায়, তান্ত্রিকের নির্দেশে শিশু বলির প্রস্তুতি ছিল তখন শেষ পর্যায়ে। হাঁড়িকাঠে সন্তানের গলা কাটতে শান দেওয়া হচ্ছে তরবারিতে। চলছে মন্ত্রোচ্চারণ, যজ্ঞ। যজ্ঞের লকলকে আগুনের শিখা ঘিরে চলে পরিবারের উন্মত্ত নগ্ন নৃত্য।

ন্ত্রিকের নির্দেশে শিশু বলির প্রস্তুতি ছিল তখন শেষ পর্যায়ে। হাঁড়িকাঠে সন্তানের গলা কাটতে শান দেওয়া হচ্ছে তরবারিতে। চলছে মন্ত্রোচ্চারণ, যজ্ঞ। যজ্ঞের লকলকে আগুনের শিখা ঘিরে চলে পরিবারের উন্মত্ত নগ্ন নৃত্য।


গনমাধ্যমে জানা যায়, তান্ত্রিকের নির্দেশে শিশু বলির প্রস্তুতি ছিল তখন শেষ পর্যায়ে। হাঁড়িকাঠে সন্তানের গলা কাটতে তরবারিতে শান দেওয়া হচ্ছে । চলছে মন্ত্রোচ্চারণ, যজ্ঞ। যজ্ঞের লকলকে আগুনের শিখা ঘিরে পরিবারের উন্মত্ত নগ্ন নৃত্য চলছে ।

জানা গেছে, ওদালগুড়ি জেলার গণকপাড়া গ্রামের স্থানীয় শিক্ষক যাদব চহরিয়ার বাড়িতে তিন বছর আগে ঘাঁটি গাড়েন তান্ত্রিক রমেশ চহরিয়া। তার নির্দেশেই শিশু বলির আয়োজন করে পরিবার।

তান্ত্রিকের মগজধোলাইয়ে পরিবারের লোকেরা বাড়িতে থাকা বাইক ও গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। প্রতিবেশীরা এই উন্মত্ত তাণ্ডব অনেকবার আটকানোর চেষ্টা করে। এতে করে উল্টো তাদের দিকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে ছুটে আসে ওই পরিবারের লোকজন।তাই স্থানীয় বাসিন্দারা বাধ্য হয়ে পুলিশে খবর দেন । খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীর সদস্যরা।

পুলিশ ঘটনাস্থলে প্রথমে এই যজ্ঞ বন্ধ করতে আহ্বান জানায় । কিন্তু তাতে কোনো কর্ণপাত করেনি ওই পরিবারের সদস্যরা। শেষ পর্যন্ত নরবলি রুখতে গুলি চালায় পুলিশ।

পুলিশের গুলিতে গৃহকর্তা যাদব চহরিয়া জখম হন। এছাড়া ভণ্ড সাধুসহ পরিবারের অন্যদের সদস্যদের গ্রেপ্তার করা হয়।

নিউজ২৪.ওয়েব/ডেস্ক/মৌ দাস.

newstwo

Read Previous

অর্ধ দিবস হরতালে পুলিশের বাধা ও ভাংচুর

Read Next

সায়মা ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায়: আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *