দুই ছাত্রীকে নকলে বাধা দেওয়ায় শিক্ষককে প্রহার, ভিডিও ভাইরাল

নিউজ২৪ ডেস্ক: উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় নকল করছিলো দুই ছাত্রী। আর তাতে বাধা দেওয়ায় পাবনায় এক কলেজ শিক্ষককে মারধর করেছে কয়েকজন যুবক। অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের সদস্যদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন শিক্ষকরা।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ নেতারা বলছেন, মারধরের ঘটনায় জড়িতরা তাদের সংগঠনের কেউ না।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, মটর সাইকেলে করে এক শিক্ষক কলেজ থেকে বের হচ্ছেন, এ সময় তাকে মারধর করছে কয়েকজন যুবক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে ওঠে নিন্দার ঝড়।

শিক্ষকরা জানান, গত ৬ মে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার উচ্চতর গণিত বিষয়ের পরীক্ষায়, পাবনা মহিলা কলেজ কেন্দ্রে অসাদুপায় অবলম্বন করছিলেন দুই ছাত্রী। এসময় তাদের বাধা দিয়ে পরীক্ষার উত্তরপত্র কেড়ে নেন ওই কক্ষে দায়িত্বরত সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের শিক্ষক মাসুদুর রহমান। এরই জেরে ১২ মে ব্যবহারিক পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন শেষে বাড়ির ফেরার সময় মাসুদুর রহমানকে মারধর করা হয়।

প্রভাষক মাসুদুর রহমান বলেন, ‘তারা বলেছে, আপনি যদি বাংলা বিভাগে আসেন তাহলে আগুন ধরিয়ে দিবো। জুন্নুন ও তার সহযোগীরা এই কাজ করেছে।’ তবে হামলার দায় অস্বীকার করলেন অভিযুক্ত।

সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি শামসুদ্দিন জুন্নুন বলেন, ‘আমি বা আমার সংগঠনের কেউ এর সঙ্গে জড়িত না। এর সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিতে আইনের আশ্রয় নেয়া হবে বলে জানান সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজ অধ্যক্ষ। অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, আইনগত ব্যবস্থা নিব, এ ব্যাপারে আমরা শিক্ষক সমিতিকে জানিয়েছি।

মাসুদুর রহমান সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজে বাংলা বিভাগের একজন প্রভাষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। দেখুন ভিডিওতে… (ভিডিওটি প্রকাশ করেছে চ্যানেল আই)

নিউজ২৪ ডেস্ক/সংবাদাদাতা/হৃদয়

news24

Read Previous

বাবার যৌন লালসার শিকার মেয়ে, একবার গর্ভপাতের পর পুনরায় ধর্ষণ করে গর্ভধারণ!

Read Next

ছাত্রলীগের নতুন কমিটি করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *